শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ০১:২৩ পূর্বাহ্ন

ইফতার সামগ্রী বিতরণে গুম ও বিচারবহির্ভূত সরকারি এজেন্টদের দ্বারা নিষ্ঠুর এবং অবমাননাকর আচরণ ডা.শাহাদাত:

মোঃ শহিদুল ইসলাম
সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টারঃ

চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপি’র আহবায়ক ডা. শাহাদাত হোসেন বলেছেন,সআন্তর্জাতিকভাবে প্রমানিত হয়েছে এই স্বৈরাচার সরকার গুম ও বিচারবহির্ভূত হত্যার সাথে জড়িত।

মার্কিন মানবাধিকার রিপোর্টে মানবাধিকার লঙ্ঘনের কিছু অভিযোগের বিশ্বাসযোগ্য প্রতিবেদন যুক্তরাষ্ট্রের হাতে রয়েছে। যার মধ্যে বিচারবহির্ভূত হত্যা, গুম, সরকারি এজেন্টদের দ্বারা নিষ্ঠুর এবং অবমাননাকর আচরণ, নির্যাতন, মামলা,প্রাণনাশেন হুমকি, নির্বিচারে আটক, রাজনৈতিক কারণে বন্দি করা, উদ্দেশ্যপ্রণোদিত প্রতিশোধ,বিচার বিভাগকে চাপে রাখা, স্বেচ্ছাচাতা, বেআইনী হস্তক্ষেপ করেছে।

একজনের অপরাধে পরিবারের অন্য সদস্যকে হয়রানী করেছে।সাংবাদিকদের ভয়ভীতি প্রদর্শন, অযৌক্তিক গ্রেপ্তার, সেন্সরশিপ আরোপসহ মতপ্রকাশ এবং মিডিয়ার উপর গুরুতর বিধিনিষেধ আরোপ করেছে। ইন্টারনেট ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা শান্তিপূর্ণ সমাবেশের স্বাধীনতা খর্ব করার চেষ্টা করেছে। তিনি গত ১৭ এপ্রিল, রবিবার, বিকালে ১২নং সরাইপারা ওয়াড়ের মরহুম জালাল উদ্দীন সোহেল স্মৃতি সংসদের উদ্যোগে অসহায়, দরিদ্রদের মাঝে সেহরি ও ইফতার সামগ্রী বিতরণ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন।

ডা. শাহাদাত হোসেন আরো বলেন, সাবেক এম.পি এম ইলিয়াস আলী ২০১২ সালের ১৭ এপ্রিল গুম হয়। ১০ বছর অতিক্রম হলেও ইলিয়াস আলী গুমের রহস্য এখনো উদঘাটন হয়নি। একইভাবে চৌধুরী আলম, চট্টগ্রামের বাচা চেয়ারম্যান সহ অসংখ্য গুম হয়েছে। এই সরকার আসার পর থেকে ৬০০ জন গুম হয়েছে। বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে শত শত মামলা দেওয়া হয়েছে। হাজার হাজার নেতাকর্মীদেরকে আসামি করে এলাকাছাড়া করেছে এই সরকার। এই সরকার নির্যাতন-নিপীড়নের মাধ্যমে দেশে একনায়কতন্ত্র কায়েম করেছে।

প্রধান বক্তার বক্তব্যে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব আবুল হাসেম বক্কর বলেন, বিএনপি চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে অন্যায়ভাবে সাজা দিয়ে বন্দি করে রেখেছে। সকল ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে আন্দোলনকে বেগবান করতে হবে।

মরহুম জালাল উদ্দীন সোহেলের বড় ভাই জামাল উদ্দিন উদ্দীন বাবুর সভাপতিত্বে সালাউদ্দিন রাসেল মির্জার সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সদস্য কামরুল ইসলাম, ১২নং ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি খাজা আলাউদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক আশরাফ চৌধুরী, পাহাড়তলী বাজার সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোঃ মহসিন,আরো উপস্থিত ছিলেন মোঃ মানিক সাইফুল,রাকিব,বাবুল,ইমন,ওমর কাইয়ুম, মিন্টু,মাসুদ,জুয়েল মির্জা, সবুজ, আলআমিন, সাহাবউদ্দীন, রাজু, শাকিল, সজিব, জাহিদ সহ প্রমূখ নেতৃবৃন্দ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুক পেজ
ব্রেকিং নিউজ