শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ০২:৫৭ পূর্বাহ্ন

পবিত্র রমজানে একসঙ্গে তিন দিনের বেশি পণ্য ক্রয় না করার অনুরোধ জানান সাবেক প্রশাসক সুজন

 

মোঃ শহিদুল ইসলাম
সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টারঃ

আসন্ন রমজান মাসে একসঙ্গে তিন দিনের বেশি পণ্য ক্রয় না করার অনুরোধ জানিয়েছেন নাগরিক উদ্যোগের প্রধান উপদেষ্টা এবং চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের সাবেক প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন। গত দিন বুধবার (৩০ মার্চ ২০২২ইং) এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তিনি এ অনুরোধ জানান।

এসময় তিনি বলেন রমজান মাস আসলেই ভোগ্যপণ্যের দাম বাড়তে পারে ভেবে আমাদের এক শ্রেণীর ক্রেতাসাধারণ একসঙ্গে পুরো মাসের বাজার করে ফেলেন। এতে করে সরবরাহ লাইনে সংকট তৈরি হওয়ার আশংকা রয়ে যায়। আর এ সংকটকে পুঁজি করে কতিপয় অসাধু ব্যবসায়ী দাম বাড়ানোর সুযোগ পায়। আর এতে করে কষ্টে পড়ে যায় সাধারণ ভোক্তাগণ। তাই কোনভাবেই একসঙ্গে পুরো মাসের বাজার করে ব্যবসায়ীদের অসাধু অপতৎপরতার সুযোগ করতে দেওয়া যাবে না। সেজন্য ক্রেতা সাধারণকে রমজান মাসে একসঙ্গে তিন দিনের বেশি পণ্য ক্রয় না করার অনুরোধ জানান তিনি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সরাসরি হস্তক্ষেপের ফলে দ্রব্যমূল্য সহনীয় পর্যায়ে এসেছে সেজন্য প্রধানমন্ত্রীকে কৃতজ্ঞতা জানান সুজন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর মনিটরিংয়ের ফলে রমজান মাসেও নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম ক্রেতাদের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে থাকবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। তবে বর্তমান পরিস্থিতিতে কারো একার পক্ষে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ করা কঠিন বলে মত প্রকাশ করেন চসিক এর সাবেক এই প্রশাসক। এক্ষেত্রে আমদানিকারক, ক্রেতা, বিক্রেতা এবং সরকারী প্রশাসনের যৌথ উদ্যোগে একটি স্থিতিশীল বাজার ব্যবস্থা গড়ে তোলা সম্ভব। বিক্রেতা কিংবা সরবরাহকারী যদি সবসময় বেশি লাভের আশা করে থাকেন সেক্ষেত্রে পণ্যের দাম সহনীয় পর্যায়ে রাখা সম্ভব হয় না। তাই পণ্য বিক্রয়ের ক্ষেত্রে বিক্রেতাদের আরো মানবিক হওয়ার অনুরোধ সুজনের। তিনি পবিত্র রমজান মাসের ভাবগাম্ভীর্যতা বজায় রাখার স্বার্থে অযথা নিত্য পণ্যের দাম বৃদ্ধি না করা ভেজাল, পচা, বাসি, মেয়াদোত্তীর্ণ খাবার পরিবেশন না করে রোজাদারগণ যাতে স্বস্তিতে রমজান পালন করতে পারে সেজন্য সর্বস্তরের ব্যবসায়ীদের মানবিক ভ‚মিকা আশা করেন। তিনি আরো বলেন টিসিবির ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে ভর্তুকি মূল্যে পণ্যসামগ্রী বিক্রয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ। এর ফলে স্বস্তি পেতে শুরু করেছে সাধারণ মানুষ। এ ব্যবস্থার ফলে প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষভাবে উপকৃত হবে প্রায় পাঁচ কোটি মানুষ যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দুরদর্শিতার ফসল। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সময়োচিত এ পদক্ষেপের কারণে দ্রব্যমূল্যের দাম কমতে শুরু করেছে এবং জনগন এর সুফল ভোগ করছে। তাই টিসিবির ফ্যামিলি কার্ডের কার্যক্রম রমজান মাস পর্যন্ত চালু রাখার জন্য বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতি উদাত্ত আহবান জানান তিনি। এছাড়া পবিত্র রমজানকে কেন্দ্র করে নগরীসহ বিভিন্ন উপজেলার হাট বাজারসমূহে বিএসটিআই’র অনুমোদনহীন নকল খাদ্যপণ্য বিপণনের খবর পাওয়া যাচ্ছে। বিশেষ করে সেমাই, ঘি, মসলা, ভেজাল, পচা, বাসি খাবার পরিবেশন, ক্ষতিকর কেমিক্যাল মেশানো ফলমূল ও শাকসবজি বিক্রির মাধ্যমে জনজীবন হুমকির মুখে ফেলে দেওয়ার চক্রান্তে লিপ্ত রয়েছে একটি চক্র। এসব ভেজাল ও অনিয়ম প্রতিরোধ এবং দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে জেলা প্রশাসন, বিএসটিআই, আইন প্রয়োগকারী সংস্থাসহ সংশ্লিষ্ট সকল পক্ষকে একসাথে কাজ করার অনুরোধ জানান খোরশেদ আলম সুজন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুক পেজ
ব্রেকিং নিউজ