শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬:৫১ পূর্বাহ্ন

‘ডাকাত ঢুকেছে’ বলে মসজিদে-মসজিদে মাইকিং, রাতভর আতঙ্ক

বরগুনার বেতাগী উপজেলাজুড়ে সোমবার দিবাগত রাতে  হঠাৎ ডাকাতের আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।  ডাকাতের ভয়ে ওইদিন সারা রাত উপজেলার মানুষের নির্ঘুম রাত কাটে। গভীর রাতে হঠাৎ করেই ‘ডাকাত ঢুকেছে’ গুজব ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে বিভিন্ন মসজিদে মাকিং ও প্রচারণা চালানো হয়। বিশেষ করে উপজেলার বিষখালী নদীতীরবর্তী গ্রামগুলোর মানুষের মধ্যে ডাকাত আতঙ্ক ছিল সীমাহীন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সোমবার (০৮ নভেম্বর) রাত সাড়ে ১০টার দিকে পাশ্ববর্তী কাঠালিয়া উপজেলার কচুয়া ফেরিঘাট এলাকায় লোকজনসহ একটি ট্রলার আসে। স্থানীয়ভাবে তখন নদীতে ডাকাত এসেছে মর্মে খবরটি ছড়িয়ে পড়ে। ডাকাত ঢুকেছে এমন সন্দেহে শৌলজলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান ফেসবুকে একটি পোস্টের মাধ্যমে সবাইকে সতর্ক হবার আহবান জানান। এই খবরটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে পার্শ্ববর্তী পুরো বেতাগী উপজেলাজুড়ে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়। এসময় এলাকার মসজিদে মসজিদে মাইকিং করে সবাইকে সতর্ক থাকতে বলা হয়। ডাকাত ঢুকেছে এমন খবর পেয়ে এলাকার মানুষ লাঠি নিয়ে জড়ো হয়ে রাস্তায় অবস্থান নেয়। ডাকাত আতংকে  তারা সারা রাত এলাকা পাহাড়ায় থাকে।

উপজেলার হোসনাবাদ ইউনিয়নের ফুলতলা গ্রামের শহিদুল ইসলাম জানান, রাতে এলাকায় ডাকাত ঢুকেছে বলে বিভিন্ন স্থান থেকে খবর পাওয়ার পর আমরা স্থানীয়দের সজাগ থাকতে এলাকার মসজিদ থেকে মাইকিং এর মাধ্যমে প্রচারণা চালাতে থাকি।

মোকামিয়া ইউনিয়নের ছোট মোকামিয়া এলাকার রাজিব হাওলাদার বলেন, “রাত সাড়ে ১১টার দিকে এলাকার মসজিদের মাইকে ঘোষণা দেওয়া হয়, ‘ডাকাত ঢুকেছে।’ আমরা ভয়ে সারারাত আতঙ্কিত অবস্থায় থাকি।”

উপজেলার কেওড়্যাবুনিয়া গ্রামের বাসিন্দা ও বেতাগী ডিগ্রী কলেজের শিক্ষক মো. মিজানুর রহমান বলেন, “রাত ১২টার দিকে মসজিদের মাইকে ঘোষণা দেওয়া হয়, এলাকায় ডাকাত ঢুকেছে। সবাই যেনো সতর্ক থাকি। পরে নিশ্চিত হই যে এটা গুজব ছিল।”

জানা গেছে, সোমবার দিবাগত রাত ১১টা থেকে ১টা পর্যন্ত উপজেলার পৌরসভা,  সদর,  মোকামিয়া এবং হোসনাবাদ ইউনিয়নের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ ডাকাতের খবর মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিতে শুনেছেন। অনেকে সেটা বিশ্বাস করে মধ্যরাতে স্বজনদের ফোন দিয়ে সতর্ক করেন। কেউ কেউ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ বিষয়ে পোস্ট দেন।

বেতাগী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহ আলম হাওলাদার জানান, রাতে কোথাও কোনো ডাকাতির ঘটনা ঘটেনি। এটা গুজব। তবে এই গুজবের কারণে রাতে পুলিশ বাড়তি টহলের ব্যবস্থা করেছিল।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুক পেজ
ব্রেকিং নিউজ