বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৪:০৬ অপরাহ্ন

নিজ বাড়ির কেয়ারটেকার এর ছুরিকাঘাতে আহত বাড়িওয়ালা আব্দুল মান্নান

 

সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টারঃ

বন্দরনগরী চট্টগ্রামের চাক্তাই নতুন ফিশারি ঘাট এলাকায় আব্দুল মান্নান কলোনি নামে আব্দুল মান্নানের চারতলা ভবন অবস্থিত। ভবনের কেয়ারটেকার হিসেবে সু দীর্ঘ ১৮-২০ বছর যাবৎ চাকরি করছেন আব্দুর রব। ছুরিকাঘাতের রহস্য উদঘাটনে স্থানীয় ভাবে জানা যায় গত ১৩ নভেম্বর ২০২১ ইং তারিখে সন্ধ্যা আনুমানিক ৬ টার দিকে আব্দুল মান্নান তার ভাড়া বাসার চাপাকল এর টাকা দিতে সেখানে যাওয়া মাত্র তার ভবনে চাকুরীরত কেয়ারটেকার আব্দুর রব তার সাথে থাকা লোকজন নিয়ে তার উপর অতর্কিত হামলা চালায় এবং ছুরিকাঘাত করে। এসময় আব্দুর রবের সাথে থাকা আব্দুল মতিন নামক অন্য একজন তার শরীরে হালকা এসিড জাতীয় ব্যাটারির পানি নিক্ষেপ করে। আব্দুর রব এর চিৎকারে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে দ্রুত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। তার শারীরিক অবস্থা দেখে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে হাসপাতালে ভর্তি করান। চিকিৎসা গ্রহণের পর আবদুল মান্নানকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে রিলিজ দিলে তিনি তার উপর অতর্কিত হামলা ও ছুরিকাঘাতের বিষয়টি নিয়ে চট্টগ্রাম বাকুলিয়া থানায় এজাহারের উদ্দেশ্যে গেলে দায়িত্বরত অফিসার বিষয়টিকে অভিযোগ আকারে গ্রহণ করে তদন্ত সাপেক্ষ পরবর্তীতে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের বিষয়ে আশ্বাস প্রদান করেন। এ বিষয়ে চট্টগ্রাম বাকুলিয়া থানায় অভিযোগের তদন্তকারী কর্মকর্তা মোস্তাফিজ এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি অভিযোগের বিষয়টি নিশ্চিত করেন এই প্রতিবেদককে। সরেজমিন তদন্তে আব্দুল মান্নানকে ছুরিকাঘাতের বিষয়টি উঠে আসে। জানা যায় আব্দুল মান্নান এর কেয়ারটেকার হিসেবে দীর্ঘদিন চাকরি করার কারণে অত্যন্ত বিশ্বস্ত হয়ে উঠেন আব্দুর রব। নতুন ফিশারীঘাট নিকটবর্তী হওয়াতে সেখানে নানা রকম ব্যবসা বাণিজ্য পরিচালিত হয়। সে হিসেবে আব্দুর রব ভবন মালিক আব্দুল মান্নান এর কাছ থেকে শর্তাবলী সম্পন্ন চুক্তির মাধ্যমে ৩১ ডিসেম্বর ২০২০ ইং নন জুডিশিয়াল স্টাম্প ও চেক সিকিউরিটির ভিত্তিতে ৯ লক্ষ ও ৩ লক্ষ টাকা সহ দুই ধাপে সর্বমোট ১২ লক্ষ টাকা পার্টনারশিপ ব্যবসা পরিচালনার উদ্দেশ্যে গ্রহণ করেছিলেন । দীর্ঘ পাঁচ মাস এই টাকার বিপরীতে কোন ধরনের ব্যবসা পরিচালিত না হবার কারণে ভবন মালিক আব্দুল মান্নান টাকা ফেরত চাইলে কেয়ারটেকার আব্দুর রবের সাথে বারবার বিষয়টি নিয়ে বাক-বিতণ্ডার সৃষ্টি হয় । অবশেষে আব্দুল মান্নান তার কেয়ারটেকারের ছলচাতুরির বিষয়ে সন্দেহ পোষন করেন এবং ব্যাংকে চেক জমা দিলে চেক ডিজঅনার হওয়াতে তিনি আইনের আশ্রয় গ্রহণ করে চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট এর আদালতে সি,আর মামলা নং ২০৭/২০২১ দায়ের করেন। মামলার বিষয়ে আব্দুর রব অবগত হওয়ার পর থেকেই অভিযুক্ত আব্দুর রব এর সাথে আব্দুল মান্নান এর মধুর সম্পর্কের বিলুপ্তি ঘটে ও বৈরি সম্পর্কের সূত্রপাত হয়। ভবন মালিক আব্দুল মান্নান দাবি করেন আব্দুর রবের কাছে তার পাওনা ১২ লক্ষ টাকা ফেরত না দেয়ার উদ্দেশ্যে এবং টাকা গুলো আত্মসাতের লক্ষ্যে তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যার উদ্দেশ্যে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে লিপ্ত এমন লোকজন নিয়ে এই জঘন্য আক্রমণ চালায়। অভিযুক্ত আব্দুর রব এর বক্তব্য নেয়ার উদ্দেশ্যে তার সাথে দেখা করার জন্য একাধিকবার মুঠো ফোনে যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ না করাতে এ বিষয়ে তার কাছ থেকে কোনো ধরনের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.


ফেসবুক পেজ
ব্রেকিং নিউজ