রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ০২:৩৫ পূর্বাহ্ন

বাকেরগঞ্জে আদালতের নির্দেশ অমান্য করে জমি দখল করলো ভূমি দস্যু মোখলেছ ও হাবিব বাহিনী

১.নিরব ভূমিকায় প্রশাসন ।

২.ভূমি দস্যুদের হাতে জিম্মি রাজ্জাক ও কাদের সিকদারের পরিবার।

৩.জাল দলিলের বলে আদালতের নির্দেশ অমান্য করে জমি দখল করলো ভূমি দস্যুরা।

৪.ভূমি দস্যু মোখলেছ ও হাবিব বাহিনীর অত্যাচারে অতিষ্ঠ এলাকবাসী।

৫.ডাকাতি ও অবৈধ টাকার জোরে খুন জখম করতে ও সময় লাগে না ভূমি দস্যু মোখলেছ ও হাবিব বাহিনীর।

৬.একাধিক মামলা থাকা সত্তেও প্রকাশ্যে ঘুরে বেরাচ্ছে ভূমি দস্যুরা।

 

বরিশাল জেলার বাকেরগঞ্জ উপজেলা ১২ নং রঙ্গশ্রী ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ড আব্দুল কাদের সিকদারের বাড়ী ও কবরস্থান এর পাশের জমি দখল করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিজ্ঞ আদালতের নির্দেশ অমান্য করে আজ ২১-১২-২০২১ ইং তারিখ ভোর ৬ টার সময় জোর পূর্বক ভাবে জমি দখল করে হালচাষ করেছেন ভূমি দস্যু মোখলেছ ও হাবিব বাহিনী। আদালত সূত্রে জানা যায় আব্দুল কাদের সিকদারের খালাতো ভাই আব্দুল রাজ্জাক হাওলাদার ৩০-০৬-২০২১ তারিখ বাদী হয়ে মোকাম বরিশাল বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন যাহার মামলা নং- ১০৭/২১ ইং ফৌঃ কাঃ বিঃ আইনের ১৪৪/১৪৫ ধারা। অত্র আদালতে নালিশিতে বলা হয় বিবাদী ১। মোখলেছুর রহমান (৬৫), পিতাঃ মৃত রাজেন উদ্দিন ২। হাবিব হাওলাদার (৪৫), ৩। জামাল হাওলাদার (৪৮), ৪। ইউসুফ আলী (৫০), সর্ব পিতাঃ মৃত হাশেম হাওলাদার ওরফে হাশেম ফকির, সর্ব সাং- আব্দুল কাদের সিকদারের বাড়ী, বিরংগল, থানাঃ বাকেরগঞ্জ, জেলাঃ বরিশাল, সহ অজ্ঞাতনামা ৫-৬ জন।

মামলার পিটিশনে বলা হয় বিবাদীরা, সন্ত্রাসী, দাঙ্গা, হাঙ্গামাকারী, লাঠিয়াল, ভূমিদস্যু প্রকৃতির লোক। তাহারা গায়ের বলে বলিয়ান বিধায় আইন কানুনের কোন তোয়াক্কা করেনা। নিম্ন তফসিল সম্পত্তি মামলার বাদীর পিতার দেওয়ানী মোকাদ্দমা নং- ৭৮/১৯৯৪ মূলে মোকাম বরিশাল বিজ্ঞ বাকেরগঞ্জ সহকারী জজ আদালত। হইতে বিগত ইং ২৬/০৭/১৯৯৪ সালে ডিক্রি মূলে মালিক থাকিয়া রেকর্ড করাইয়া মৃত্যুবরন করিলে তাহার মৃত্যুতে আমি সহ স্বাক্ষীর মালিক থাকিয়া দীর্ঘ প্রায় ১০০ বছর যাবত ঘর বাড়ী নির্মাণ করিয়া চাষাবাদ করিয়া বিভিন্ন প্রজাতির ফসল আবাদ করিয়া শান্তিপূর্ণ ভাবে খাজনাদি পরিশোধ করিয়া ভোগ দখলে আছি। বিবাদীরা সর্বদা আমার সম্পত্তি জবর দখল করার জন্য পায়তারা করিতে থাকে। তারই ধারাবাহিকতায় ঘটনার দিন ও সময় অর্থাৎ বিগত ইং ১৮/০৫/২০২১ তারিখ রোজ মঙ্গলবার সকাল অনুমান ১০.০০ ঘটিকার সময় আমি সহ কতক স্বাক্ষী নিম্ন তফসিল সম্পত্তিতে পুরাতন কবরস্থানের মাটি কাটিতে গেলে সকল বিবাদীরা হাতে দা, লেজা, লাঠি, রামদাও ইত্যাদি অস্ত্রাদি নিয়া অবৈধ ভাবে তফসিল সম্পত্তিতে অনুপ্রবেশ করিয়া আমাদের মাটি কাটিতে বাধা প্রদান করে। বিবাদীরা হুমকি দিয়া বলে এই জমির
মাটি কাটিয়া নিলে রক্তে লাল করিয়া ফেলিবে। আমি সহ স্বাক্ষীরা বিবাদীদের বাধা প্রদান করিলে সকল বিবাদীরা আমাদের খুন জখম করার জন্য উধ্যথ হয়।

আমি বিবাদীদের উদ্দেশ্য খারাপ দেখিয়া জোরে ডাক চিৎকার শুরু করিলে মামলায় মানিত স্বাক্ষীরা সহ স্থানীয় লোকজন আগাইয়া আসিলে বিবাদীরা আমার এবং স্বাক্ষীদের কোন ক্ষতি করিতে পারে নাই। বিবাদীরা যাইবার সময় এই বলিয়া হুমকি দিয়া যায় যে, ভবিষ্যতে যেকোন কিছুর বিনিময়ে তফসিল সম্পত্তি জোর পূর্বক দখল করিয়া নিবেই নিবে, তাহাতে ২/৪ খুন জখম হইলেও তাহারা পিছুপা হইবেনা। বিবাদীদের ভয়ে আমি এবং স্বাক্ষীরা হাটে, মাঠে, বাজারে কোথাও নিরাপদে চলাফেরা করিতে পারিতেছে না। বিবাদীদের দ্বারা নিম্ন তফসিল সম্পত্তিতে যেকোন সময় যেকোন ধরনের গুরুতর শান্তি ভঙ্গের আশংকা রহিয়াছে। ঘটনার বহু সাক্ষী আছে। তাহারা বিচারেন প্রমান করিবে। সেমতে প্রার্থনা বিজ্ঞ আদালত দয়া প্রকাশে নিম্ন তফসিল সম্পত্তিতে বিবাদীদের প্রবেশাধিকারের বিষয় ফৌঃ কাঃ বিঃ আইনের ১৪৪/১৪৫ ধারা বিধান মোতবেক অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞার আদেশ দিয়া সুবিচার করার করার মর্জি হয়।

(তসিল সম্পত্তির পরিচয়)
১। জেলাঃ বরিশাল, থানাঃ বাকেরগঞ্জ, মৌজাঃ বিরঙ্গল, জে.এল নং ০১, এস.এ খতিয়ান নং- ২৮১, ৫৩৪ এস.এ দাগ নং- ২১৯৭, ২১৯৮, ২৩৫, ২১৯৬, ২২৩৯, মোট জমির পরিমাণ ১ একর ১১ শতাংশ। উহার মধ্যে ৮৯ শতাংশ বিরোধীয় সম্পত্তি।

(তফসিলের চৌহুদ্দি:)
পূর্বেঃ রব মুন্সি এর ভিটা, পশ্চিমেঃ রহম আলীর বাড়ী, উত্তরেঃ হাকিম খা এর বাড়ী, দক্ষিণেঃ ছত্তার গাজীর বাড়ী।

উক্ত মামলার নালিশি দেখিয়া বিজ্ঞ আদালত বাকেরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কে শান্তি শ্রীংখলা বজায় রাখার নির্দেশ প্রদান করেন অপর দিকে বাকেরগঞ্জ ভূমি কর্মকর্তা কে তদন্তের নির্দেশ দেয় মামলা চলমান। তৎক্ষানি সময় আদালতের নোটিশ অনুযায়ী ঘটনাস্থলে থানা কতৃপক্ষ এ,এস,আই সফিকুল ইসলাম কে শান্তি শ্রীংখলা বজায় রাখার নোটিশ দিয়ে ঘটনাস্থলে পাঠায়। ঘটনাস্থলে পুলিশের সামনে বিবাদীরা তাদের সন্ত্রাসীরা বাদীকে কুপিয়ে জখম করে বাদী আব্দুল রাজ্জাক গুরুতর আহত হয়ে বরিশাল সে.বা.চি.ম হাসপাতালে ভর্তি ছিলো ১২ দিন কোন মামলা হয়নি বাদী বিবাদীদের ভয়ে কোন মামলা করেনি।

পুলিশ বিবাদীদের আটক না করে শান্তি শ্রীংখলা বজায় রাখার নোটিশ দিয়ে চলে আসে মামলা তদন্তধীন চলমান এই বিষয় নিয়ে একাধীক পত্র-পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছিল। আগামী তারিখ ১৭-০১-২০২২ তারই ধারাবাহিকতায় আদালতের নিশেধাজ্ঞা ও তদন্তধীন চলমান থাকা সত্তেও বিবাদী মোখলেছ ও হাবিব বাহিনী মিলে বিভিন্ন সময় বাদীসহ বাদীর স্বাক্ষীদের কে খুন জখম ও বাড়ী তারিয়ে দেওয়ার ও জমি দখল করার ভয়-ভীতি দেখাইয়া আসছেন। আজ মঙ্গলবার ২১ শে ডিসেম্বর ভোর ৬ টার সময় জোর করে জমি দখল করে হালচাষ করেছেন বিবাদীরা ও তাদের সন্ত্রাস বাহিনীরা মিলে এতে ১৪৪/১৪৫ ধারা বিধান ও আদালতের নির্দেশ অমান্য করেছেন মোখলেছ ও হাবিব সন্ত্রাস বাহিনীরা নিরব ভূমিকায় প্রশাসন থানাকে জানাইলে ও সারা পায়নি বাদী পক্ষ। এ বিষয় বাকেরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার কাছে জানার চেষ্টা করলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

চলবে আগামী পর্বে………..


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুক পেজ
ব্রেকিং নিউজ