সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ০১:১১ অপরাহ্ন

সড়ক দুর্ঘটনায় মেধাবী স্কুল ছাত্রী উমামা নিহত।

 

আহসান হাবীব স্টাফ রিপোর্টারঃ-

নিরাপদ সড়কের দাবিতে চলমান ছাত্র আন্দোলনের মধ্যেই আবারও ঝরে গেল মেধাবী আরেক ছাত্রীর তাজা প্রাণ। ছোট বোনকে নিয়ে নোয়াখালী থেকে মেহেরপুর যাওয়ার উদ্দেশ্যে বের হয়ে ঢাকা চট্রগ্রাম মহাসড়কের চান্দিনা নামক স্থানে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় প্রাণ হারান, মেহেরপুর জেলার গাংনী থানার ষোলটাকা গ্রামের জোয়াদ্দার বাড়ির জাহাঙ্গীর জোয়াদ্দাররের মেয়ে উমামা জোয়াদ্দার (১৪), এসময় আহত হন জাহাঙ্গীর জোয়াদ্দারের বড় ছেলে মামুন জোয়াদ্দার (২৬)

(০৪ ডিসেম্বর) রবিবার দুপুর আনুমানিক ১২টার সময় এই দুর্ঘটনা ঘটে, নিহতের ভাই জানান, স্বাভাবিক গতিতে চলছিলো তার মোটরসাইকেল, কুমিল্লার চান্দিনার বড় গোবিন্দপুর নামক স্থানে পৌঁছালে হঠাৎ এক বৃদ্ধা পথচারী তার মোটরসাইকেলের সামনে দিয়ে দৌড়ে রাস্তা পার হতে গেলে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন এবং দুজনেই মোটরসাইকেল থেকে রাস্তায় ছিটকে পড়েন। এসময় নোয়াখালী থেকে ছেড়ে আসা দ্রুতগতির লাল সবুজ নামক বাসের (ঢাকা মেট্টো-ব-১৪-৫৫৮৭) চাকায় পিষ্ট হয় বোন উমামা, তৎক্ষণাৎ স্থানীয়রা কুমিল্লা চান্দিনা সরকারী হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

উমামা নোয়াখালী সোনাইমুড়ির নতুন বাজার চাষীরহাট নুরুল হক উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণীর ছাত্রী ছিলেন, ফাইনাল পরীক্ষা শেষে বড় ভাইয়ের সাথে মোটরসাইকেল যোগে নোয়াখালী থেকে মেহেরপুর যাচ্ছিলেন, পথিমধ্যে ঢাকা চট্রগ্রাম মহাসড়কের এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় চান্দিনা হাইওয়ে পুলিশ ঘাতক বাসটি আটক করতে সক্ষম হলেও পালিয়ে যায় বাসটির চালক। নিহতের পিতা মাতা ন্যায়বিচার প্রাপ্তির আশায় চান্দিনা হাইওয়ে থানা কর্তৃপক্ষের দারস্থ হয়েছেন।
লাশের সুরতহাল সম্পন্ন করে পিতামাতাকে লাশ বুঝিয়ে দেওয়ার পর আইনগত পরবর্তী কার্যক্রম গ্রহণ করা হবে বলে জানান চান্দিনা হাইওয়ে থানা কর্তৃপক্ষ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুক পেজ
ব্রেকিং নিউজ